image

আজ, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ইং

প্রচারে বাধা হামলা ভাংচুর

সারা দেশে থামছে না নির্বাচনী সহিংসতা

ডেস্ক    |    ০২:০৪, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮

image

বিএনপি প্রার্থী হাবিবসহ ১৫ জেলায় আহত ৯৯ * ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রার্থীর বাসভবনে যৌথ বাহিনীর অভিযান * খুলনায় প্রার্থীকে নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ রাখার অভিযোগ * এক প্রার্থী ও তার স্ত্রীসহ সারা দেশে গ্রেফতার ২২০
সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে নির্বাচনী সহিংসতা। বিশেষ করে বিএনপি প্রার্থীদের প্রচারে বাধা, দলীয় অফিস ও নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা-ভাংচুর অব্যাহত রয়েছে। ধানের শীষের কর্মী-সমর্থকদের বাড়িঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটছে।

মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার বিকাল পর্যন্ত দেশের ১৫ জেলায় বিএনপির এক প্রার্থীসহ অন্তত ৯৯ জন আহত হয়েছেন। এজন্য দলটির নেতাকর্মীরা ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকে দায়ী করেছেন। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছে ক্ষমতাসীনরা। পাবনায় বিএনপি প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিবকে ছুরিকাঘাত করেছে দুর্বৃত্তরা। ঠাকুরগাঁওয়ে মির্জা ফখরুলের সহধর্মিণীর ওপর হামলা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। খুলনায় বিএনপি প্রার্থী বকুলকে নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিরুদ্ধে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ধানের শীষের প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামলের বাসভবনে আড়াই ঘণ্টা ধরে অভিযান চালিয়েছে যৌথ বাহিনী। এদিকে পুলিশ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এক প্রার্থী ও তার স্ত্রীসহ বিএনপি-জামায়াতের ২২০ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, পুরনো মামলা, নাশকতা পরিকল্পনা ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। যুগান্তর রিপোর্ট, ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

পাবনা ও ঈশ্বরদী : পাবনা-৪ আসনের বিএনপি প্রার্থী ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিবকে ছুরিকাঘাত করেছে দুর্বৃত্তরা। স্থানীয়রা জানান, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঈশ্বরদীর আলহাজ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে পূর্বনির্ধারিত গণসংযোগের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন হাবিব ও তার সমর্থকরা। এ সময় মোটরসাইকেলে এসে দুর্বৃত্তরা অতর্কিত হামলা চালায়। তাদের চাপাতির কোপে হাবিবসহ অন্তত ১১ জন আহত হয়েছেন। ভাংচুর করা হয় কয়েকটি গাড়ি।

হাবিবের শরীরের ৫টি স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। তাকে প্রথমে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে। ঈশ্বরদী থানার ওসি জাফর ফারুকী জানান, হামলার ঘটনায় ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে তিনি তাদের পরিচয় জানাতে অস্বীকৃতি জানান।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : সদর আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামলের বাসভবনে আড়াই ঘণ্টা ধরে অভিযান চালিয়েছে যৌথ বাহিনী। বুধবার বিকালে এ অভিযানে সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইসমাইলের নেতৃত্বে বিপুলসংখ্যক পুলিশ ও বিজিবি অংশ নেয়। এ সময় বাড়ির আসবাবপত্র তছনছ করে ল্যাপটপ ও সিসিটিভি মনিটরিং সিস্টেম নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে শ্যামলের বাসা থেকে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক পর্যায়ের ১২ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশের দাবি, তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ঘটনায় অভিযোগ রয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেলিম উদ্দিন বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে তার বাড়ি তল্লাশি করা হয়েছে।

মাদারীপুর : ২ আসনে বিএনপি প্রার্থী মিল্টন বৈদ্যর বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। মিল্টন বৈদ্য জানান, আমগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম টিপুর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর একটি মিছিল তার বাড়ির সামনে দিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় নৌকার কর্মী-সমর্থকরা অতর্কিত হামলা চালায়। তারা ঘরের বেড়া ভেঙে ভেতরে ঢুকে ভাংচুর ও লুটপাট চালায় এবং তার গাড়ি ভাংচুর করে।

নোয়াখালী : ৬ (হাতিয়া) আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আয়েশা ফেরদাউস ও তার স্বামী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আলীর কর্মীরা বিএনপির প্রার্থী প্রকৌশলী মোহাম্মদ ফজলুল আজিমের নির্বাচনী অফিস, কর্মী-সমর্থকদের ঘরবাড়ি ও দোকানে হামলা-ভাংচুর চালিয়েছে। এতে ৩০ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে বিএনপির ৫ কর্মীর হাত ভেঙে দেয়া হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। বুধবার সকালে উপজেলার জাহাজমারা ইউনিয়ন বাজারে গণসংযোগে গেলে এ হামলা হয়। এলাকাবাসী জানান, চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাশার, বেলাল ও মনিরের নেতৃত্বে ২০-৩০ জন রড, দামা, বগি দা ও লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করেছে। তবে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আলী।

নাটোর : বুধবার সকালে সদর উপজেলার দিঘাপতিয়া ইউনিয়নের ধলাট বাজার থেকে বিএনপি নেতা আবদুস সামাদকে তুলে নিয়ে হাতুড়িপেটা করা হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার রাতে সদরের কাফুরিয়া ইউনিয়নের চৌগাছি গ্রামে যুবদল নেতা জাহিদুল ইসলামের বসতবাড়ি ও দোকানপাট ভাংচুর করে দুর্বৃত্তরা। বিচ্ছিন্ন ঘটনায় আহত হন বিএনপির আরও ২ কর্মী।

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) : মঙ্গলবার রাতে উল্লাপাড়া উপজেলার পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নের বন্যাকান্দি বাজারে আওয়ামী লীগ সমর্থকদের সঙ্গে জামায়াত-বিএনপি সমর্থকদের কয়েক দফা ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়েছে। এ সময় ৫ জন আহত হয়েছেন। পরে পুলিশ ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সাতক্ষীরা : ১ ও ৪ আসনে নির্বাচনী সহিংসতায় অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে তালায় ১০ জন ও শ্যামনগরে ১০ জন। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া অন্তত ৬টি গাড়ি ভাংচুর, একটি নির্বাচনী অফিস ও একজন চেয়ারম্যানের বাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

খুলনা : ৩ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী রকিবুল ইসলাম বকুলকে নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ উঠেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে। বিএনপির প্রার্থী বকুল যুগান্তরকে বলেন, তার বাসভবনের চারপাশে পুলিশ ও ডিবি পুলিশ অবস্থান নিয়েছে। বুধবার সকালে গণসংযোগ করতে বের হতে চাইলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে বাড়ির বাইরে যেতে বাধা দেয়। এ সময় বাসার সামনে থেকে বিএনপি কর্মী জসিম উদ্দিন খাজা, ইঞ্জিনিয়ার শাহাবুদ্দিন সাবু ও আবদুস সালামকে গ্রেফতার করা হয়। এ বিষয়ে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) মুখপাত্র সোনালী সেন যুগান্তরকে বলেন, প্রার্থীকে অবরুদ্ধ করে রাখার কোনো ঘটনা নেই। প্রশাসন রেগুলার ওয়ার্ক করছে।

সোনারগাঁ : নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আবদুল্লাহ আল কায়সারের সমর্থক সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হোসেনের বাড়ি থেকে দুই শতাধিক টেঁটা উদ্ধার করা হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সোনারগাঁ থানা পুলিশ বুধবার রাতে এ টেঁটাগুলো উদ্ধার করে।

আরও যেসব স্থানে সহিংসতা : ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে আওয়ামী লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, গাইবান্ধায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অফিসে আগুন, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে শ্রমিক লীগ ও ছাত্রলীগের কার্যালয়ে আগুন, বগুড়ার শেরপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের বাড়িতে ককটেল হামলা ও সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে নৌকার নির্বাচনী সভায় গুলির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রামপাল (বাগেরহাট) : বাগেরহাট-৩ আসনে বুধবার সন্ধ্যায় ধানের শীষের প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. আবদুল ওয়াদুদ শেখ গৌরম্ভা বাজারে পূর্ব নির্ধারিত একটি পথসভায় যাওয়ার পথে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালায়। এতে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। হামলাকারীরা তাদের প্রচার মাইক ও বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ।

সারা দেশে গ্রেফতার

ঝিনাইদহ : ৩ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী জামায়াত নেতা অধ্যাপক মতিয়ার রহমান ও তার স্ত্রী নাজমা রহমানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকার রায়ের বাজারে মেয়ের বাসা তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থকে ২টি ল্যাপটপ ও ৭টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়। ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান এ খবর নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ জানিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে অন্তত ১৭-১৮টি নাশকতার মামলা বিচারাধীন এবং গ্রেফতারি পরোয়ানাও রয়েছে।

যশোর ও অভয়নগর : জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সাবেরুল হক সাবু ও যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খানকে বুধবার দুপুরে নাশকতার মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। এদিকে অভয়নগরে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা ইমাদ উদ্দিন গাজীসহ ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

কাপাসিয়া : গাজীপুরের কাপাসিয়ায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার আজিজুর রহমান পেরাসহ ৬৪ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে আবারও নাশকতার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। এ নিয়ে ৫ মামলায় আসামি ৪ শতাধিক। মঙ্গলবার রাতে বিএনপির ২১ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ছাগলনাইয়া ও দাগনভূঞা (ফেনী) : ছাগলনাইয়ায় যুবদল ঢাকা মহানগর উত্তরের সহ-সভাপতি কপিল উদ্দিন ভূঁইয়াসহ ১০ নেতা এবং দাগনভূঞায় ফেনী জেলা যুবদলের সহ-সম্পাদক হুমায়ুন কবির বাবুসহ ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, তাদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা রয়েছে।

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) : মঙ্গলবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত ৮ম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীসহ বিএনপির ২১ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে উপজেলা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিতভাবে অভিযোগে বিএনপির প্রার্থী রেজা আহাম্মেদ বাচ্চু মোল্লার সহধর্মিণী শামীমা আরা শেফালী বলেন, বাবাকে না পেয়ে অপু নামে ৮ম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকেও আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ।

কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) : কটিয়াদী পৌর সদরের বীরনোয়াকান্দি গ্রামে সোমবার সন্ধ্যায় বিএনপির প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামানের উঠান বৈঠকে হামলার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে। এতে বিএনপির-জামায়াতের ১৬৪ জ্ঞাত এবং ২শ’-৩শ’ জন অজ্ঞাত পরিচয় নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে। ৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ।

আরও যেসব স্থানে গ্রেফতার : নোয়াখালীর চাটখিলে ১০ জন, ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে ৪ জন, সিলেটের গোলাপগঞ্জে ৪, জকিগঞ্জে ৮ ও ফেঞ্চুগঞ্জে ৩ জন, রাঙ্গামাটির কাউখালীতে ৪ জন, বগুড়ায় ৫ জন, গাইবান্ধায় ১৪ জন, রাজশাহীতে ১১ জন, মাদারীপুরের কালকিনিতে ১ জন, কুমিল্লার বুড়িচংয়ে ৯ জন, বগুড়ার শেরপুরে ৬ জন, নেত্রকোনার কলমাকান্দায় ৬ জন, খুলনার পাইকগাছায় ৯ জন, ভৈরবে ৫ জন, পটুয়াখালীর দশমিনায় ৬ ও মির্জাগঞ্জে ১০ জন, পাবনার সাঁথিয়ায় ৫ জন, সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে ৩ ও দোয়ারাবাজারে ২, বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ৪ জন, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ৪ জন, বাগেরহাটের রামপালে ৮ জন বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

খবর : যুগান্তর



image
image

রিলেটেড নিউজ

Los Angeles

১৩:৩৮, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯

বাঁশখালীতে বেগম রোকেয়া স্বর্ণপদক বৃত্তিপ্রদান ও গুণীজন সংবর্ধনা সম্পন্ন


Los Angeles

২৩:৪০, মার্চ ২৪, ২০১৯

সেনবাগে ৪০ তম জাতীয় বিজ্ঞান অলিম্পিয়ার্ড


Los Angeles

০২:১৯, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮

গাইবান্ধা-১ আসনের ধানের শীষ প্রার্থী অপহরণ


Los Angeles

০২:০৪, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮

সারা দেশে থামছে না নির্বাচনী সহিংসতা


Los Angeles

২২:৫০, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৮

ভালুকা রণক্ষেত্র, আহত শতাধিক


image
image
image

আরও পড়ুন

Los Angeles

১৯:৫০, নভেম্বর ১৮, ২০১৯

কুতুবদিয়ায় আবারও শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক শিক্ষিকা নির্বাচিত হলেন মুক্তা


Los Angeles

১৭:৫১, নভেম্বর ১৮, ২০১৯

বাইশারীতে সাজাপ্রাপ্ত এক আসামী গ্রেপ্তার