image

আজ, বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ ইং

রোহিঙ্গারা শরনার্থী আইনের বাস্তবায়ন চায় : চরম অনিশ্চয়তায় নিবন্ধিত ২ হাজার পরিবার

কায়সার হামিদ মানিক, উখিয়া (কক্সবাজার) সংবাদদাতা    |    ২১:৫১, জানুয়ারী ১, ২০১৯

image

ফাইল ছবি

উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শরনার্থী শিবিরে রেজিস্টার রোহিঙ্গা পরিবারের শরনার্থীরা রেশন সামগ্রী উত্তোলন থেকে বিরত রয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে । দীর্ঘ ৪ মাস ধরে এসব নিবন্ধিত রোহিঙ্গারা চরম খাদ্য অভাবে ভোগছে । এমনকি এসব পরিবার গুলোতে নিয়মিত খাদ্য সংকটের পাশাপাশি হাহাকার দেখা দিয়েছে । 

সাধারন রোহিঙ্গাদের অভিযোগ, নিবন্ধিত প্রায় ১৩ হাজার ১শ ৭৬ জন রেজিস্টার রোহিঙ্গার মধ্যে ২৬শ ৪৭ পরিবার রয়েছে । এসব রেজিস্টার রোহিঙ্গা পরিবারের মধ্যে ৫ শতাধিক রোহিঙ্গা রেশন সামগ্রী উত্তোলন করে আসলেও অবশিষ্ট রোহিঙ্গা পরিবার গুলো দীর্ঘ ৩/৪ ধরে রেশন সামগ্রী উত্তোলন থেকে বিরত রয়েছে । কারন জাতিসংঘ কর্তৃক সংশোধিত শরনার্থী মর্যাদা আইনের বাস্তবায়ন না করায় তারা রেশন সামগ্রী তুলছেনা । 

সি ব্লকের রেজিস্টার রোহিঙ্গা আব্দু শুক্কুর জানান, বাংলাদেশ সরকার ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রতিনিধি দলকে বিগত ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে শরনার্থী মর্যাদা আইন বাস্তবায়নের জন্য একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন । কিন্তু এসব আইনের কোন কার্যকারিতা না থাকায় তারা তারা চরম হতাশায় ভোগছে বলে জানা গেছে । 

ডি ব্লকের বাসিন্দা শরনার্থী নুর বেগম ,নবীন সোনা,আয়েশা বেগম বলেন, ১৯৯২ সালে তালিকাভুক্ত জাতিসংঘ কর্তৃক সংশোধিত শরনার্থী আইনের ১৯৬৯,১৯৬৭,১৯৫৪,১৯৫১,১৯৮৪ ও ১৯৬১ ধারা অনুযায়ী গৃহীত আইনের বাস্তবায়ন চান তারা । এসব আইনের বাস্তবায়ন না হওয়ার কারনে প্রায় ২ হাজার রেজিস্টার শরনার্থী তাদের রেশন সামগ্রী তুলছেনা । 

ই ব্লকের বাসিন্দা শরনার্থী, রশীদা বেগম, মাবিয়া খাতুন ,আয়েশা খাতুন, সকিনা খাতুন বলেন, প্রায় ১ বছর ধরে ফুট আইটেম এবং নন ফুট আইটেম খাদ্য সামগ্রী তুলছেনা তারা । এছাড়াও বিদেশে যেসব রোহিঙ্গা পরিবার রিসেটেলমেন্ট তথা আমেরিকা, লন্ডন, কানাডা, নিউজল্যান্ড,অষ্ট্রেলিয়া, আয়ারল্যান্ড, সুইডেন, সুইজারল্যান্ডে বসবাস করছে তাদেরকে ঐসব দেশ সম্পূর্ণভাবে শরনার্থীর মর্যাদা দিয়ে রাখাসহ যাবতীয় সুযোগ সুবিধা দেওয়া  হয়েছে । একমাত্র বাংলাদেশে বসবাসরত রোহিঙ্গারা এ আইনের কার্যকারিতা বা বাস্তবায়ন দেখছেন না বলে তাদের অভিযোগ । বাংলাদেশ সরকারকে ও শরনার্থী মর্যাদা আইন বাস্তবায়নের দাবী জানান।

এফ ব্লকের বাসিন্দা শরনার্থী সৈয়দ হোছন, আজমা বেগম বলেন, এখানে একটি মহল ক্যাম্প প্রশাসনকে ম্যানেজ করে ভুল তথ্য দিয়ে নিরীহ অসহায় শরনার্থীদের হয়রানি করে আসছে বলে অভিযোগে জানা গেছে । 

রোহিঙ্গা  চেয়ারম্যান লালু ,জি ব্লকের বাসিন্দা শরনার্থী নুরুল আমিন,আবুল আলম,নুরুল হাকিম, সৈয়দ হোসন  বলেন, প্রায় ৪মাস ধরে রেশন সামগ্রী উত্তোলন থেকে বিরত থাকে । ফলে তারা চরমভাবে খাদ্য সংকটে ভোগছে । যেকোন মুহূর্তে না খেয়ে অনেক রোহিঙ্গার মৃত্যুমুখে পতিত হতে পারে । ১৯৯২ সালের শরনার্থী মর্যাদা আইন সংশোধিত আইনের বাস্তবায়ন হোক না শান্তিপূর্ণভাবে তাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর দাবী জানান ।

এ প্রসঙ্গে রোহিঙ্গা এডভোকেসী প্রোগ্রামের কাজে নিয়োজিত জেনেভা প্রোডাক্টশন অফিসার তৈয়বা শরীফ রোহিঙ্গাদের অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শরনার্থী মর্যাদা আইন বাস্তবায়নের জন্য বাংলদেশ সরকারকে অনুরোধ করা হয়েছে । তবে রেশন সামগ্রী উত্তোলনের ব্যাপারে তিনি কিছু বলতে চাননি । 

ক্যাম্প কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম বলেন, হয় আমাদেরকে পুরোপুরিভাবে শরনার্থী মর্যাদা দিতে হবে, না হয় শান্তিপূর্ণ সমাধানের মধ্যে দিয়ে মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে হবে । 

কুতুপালং ক্যাম্প ইনচার্জ রেজাউল করিম বলেন , বিষয়টি নিয়ে সরকারের একটা পরিকল্পনা রয়েছে । তবে কবে নাগাদ এ আইনের বাস্তবায়ন হবে তার কোন সঠিক জবাব দিতে পারেননি।



image
image

রিলেটেড নিউজ

Los Angeles

১৮:১৫, জুন ২৪, ২০১৯

দোহাজারীতে ৩৫ শত শিক্ষার্থীর ঝুঁকিতে মহাসড়ক পারাপার : ফুটওভার ব্রীজ নির্মাণের দাবী


Los Angeles

২৩:৪১, জুন ২৩, ২০১৯

৪৭ বছরেও অবহেলিত দক্ষিণ চট্টগ্রামের একমাত্র মুক্তিযোদ্ধা ক্যাম্প !


Los Angeles

১৬:৪৪, জুন ২৩, ২০১৯

চন্দনাইশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সঃ ২১ চিকিৎসক পদের বিপরীতে কর্মরত আছেন ৯ জন


Los Angeles

১৫:০৩, জুন ২৩, ২০১৯

পুলিশ অফিসার সালাহ্ উদ্দীন হিরার ব্যতিক্রমধর্মী জন্মোৎসব পালন


Los Angeles

০০:২২, জুন ২৩, ২০১৯

দোহাজারী ৩১শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল : জনবল সঙ্কটে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা


Los Angeles

২৩:২৮, জুন ২২, ২০১৯

উখিয়ার সীমান্তে নতুন ইয়াবা গডফাদার জয়নাল এখন কোটিপতি 


Los Angeles

২৩:৫৩, জুন ২০, ২০১৯

মিরসরাইয়ে সাকিব হত্যাকান্ডের ৪ বছরেও গ্রেফতার হয়নি প্রধান আসামী, হতাশ পরিবার


Los Angeles

০০:৪৭, জুন ২০, ২০১৯

দর্শনার্থীদের কাছে আহসান মন্জিল আর্কষণীয় করতে নানা পদক্ষেপ 


image
image