image

আজ, বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ ইং

ইটের লালচে আভায় নিভছে শিশুর আগামী

এম.জুবাইদ, পেকুয়া (কক্সবাজার) সংবাদদাতা    |    ০০:০৩, জানুয়ারী ৮, ২০১৯

image

ফাইল ছবি

৮ থেকে ১৫ বছরের ৩০ জনের মত এ শিশুরা। আনন্দ করে হেসে হেসে তারা থরে থরে সাজাচ্ছে ইট। কয়েকজন শিশু ট্রলিতে তুলছে ইট। আবার কয়েকজন শিশু ট্রলিতে করে পরিবহন করছে ইট। কাজ আর কাজ। কথা বলা বারণ করছে তারা কাজের জন্য। একজন আরেক জনের সাথে কথা বললে বেতন কর্তন। মালিকের কঠোর নির্দেশ রয়েছে কারো সাথে কথা বলা যাবেনা। মালিকপক্ষ ইটভাটায় ৫০ জনের অধিক শিশুর লেখাপড়া বাদ করিয়ে শ্রমিক হিসেবে কাজ করাচ্ছে। ইটভাটায় শিশুদের দিয়ে কঠোর পরিশ্রম করালেও স্থানীয় প্রশাসন নিরব ভূমিকা পালন করছে।

এসব শিশুর স্বপ্ন পুড়ছে পেকুয়া উপজেলার টইটং ইউনিয়নের নাপিতখালী এলাকার আহমদ নবীর মালিকনাধীন এবিএম ব্রিক।

এবিএম ইটভাটায় পরিদর্শন করতে গিয়ে দেখা যায, ভাটাশ্রমিকের সঙ্গে শিশুরাও কাজ করছে। ওদের বয়স ৮ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে। কয়লার পরিবর্তে সংরক্ষিত বনের কাঠ পুড়ানো হচ্ছে। ফসলি জমি গভীরভাবে খনন করে সেই মাটি দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে ইট। মাটি ব্যবহার করা হলেও সংশ্লিষ্ট আইন প্রয়োগকারি সংস্থা নিরব বলে জানায় স্থানীয়রা। নির্বিচারে ফসলি জমি কাটার ফলে পরিবেশ ভারসাম্যও হারাচ্ছে।

এ সময় কয়েকজন শ্রমিকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এসব শিশুর কেউ কেউ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শ্রেণিতে পডছে। আবার কেউ কেউ এখন আর বিদ্যালয়ে যায় না। কেউ নিজে থেকেই, আবার কেউ মা-বাবার সঙ্গে ইটভাটার কাজে এসেছে। কাঁচা ইট রোদে শুকানো, ইট তৈরি, ট্রলিতে করে ইট টেনে ভাটাস্থলে পৌঁছানো, মাটি বহন করাসহ সব কাজেই নিয়োজিত এসব শিশু।

কাজ করা কয়েকজন শিশুর সাথে কথা বলতে চাইলে তারা সরাসরি বলেন, মালিক ও তাদের সর্দারের বারণ রয়েছে।

বেতন কত জানতে চাইলে কাজ করা শিশুরা বলেন, ৬ মাসে প্রতিজনকে ২৫ থেকে ৩০হাজার টাকা দেয়া হয়।

বড় মিয়া নামের শ্রমিকদের সর্দার বলেন, এসব শিশু তাদের পিতা মাতার সাথে বিভিন্ন এলাকা থেকে এসেছে। তারা ইটভাটায় কাজ করেনা। তবে পিতা মাতাকে কাজের সহযোগিতা করে থাকে।

স্থানীয় কয়েকজন জানান, বিগত ২বছর আগেও এবিএম ব্রিকসে অভিযান চালিয়ে তাৎক্ষনিক ২৫ শিশু শ্রমিককে উদ্ধার করেছিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। শিশু শ্রম বন্ধ করতে মালিক আহমদ নবীকে কঠোরভাবে নির্দেশ দিলেও প্রশাসনকে বৃন্ধাগুলি দেখিয়ে চালাচ্ছে এসব। এছাড়াও প্রশাসনের নিরব ভূমিকাও সন্দেহের চোঁখে দেখছে পরিবেশবিদরা।

এবিএম ব্রিকসের মালিক আহমদ নবী বলেন, আমার ইটভাটাতে শিশুদের শ্রমিক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় না। পিতা মাতার সাথে তারা আমার ইটভাটায় থাকে। সেখানে হয়তোবা পিতা মাতার কাজে তারা সহযোগিতা করে থাকে।

পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুব-উল-করিম বলেন, শিশু দিয়ে কাজ করার ঘটনায় যথাযত ব্যবস্থা নেয়া হবে।



image
image

রিলেটেড নিউজ

Los Angeles

১৮:১৫, জুন ২৪, ২০১৯

দোহাজারীতে ৩৫ শত শিক্ষার্থীর ঝুঁকিতে মহাসড়ক পারাপার : ফুটওভার ব্রীজ নির্মাণের দাবী


Los Angeles

২৩:৪১, জুন ২৩, ২০১৯

৪৭ বছরেও অবহেলিত দক্ষিণ চট্টগ্রামের একমাত্র মুক্তিযোদ্ধা ক্যাম্প !


Los Angeles

১৬:৪৪, জুন ২৩, ২০১৯

চন্দনাইশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সঃ ২১ চিকিৎসক পদের বিপরীতে কর্মরত আছেন ৯ জন


Los Angeles

১৫:০৩, জুন ২৩, ২০১৯

পুলিশ অফিসার সালাহ্ উদ্দীন হিরার ব্যতিক্রমধর্মী জন্মোৎসব পালন


Los Angeles

০০:২২, জুন ২৩, ২০১৯

দোহাজারী ৩১শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল : জনবল সঙ্কটে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা


Los Angeles

২৩:২৮, জুন ২২, ২০১৯

উখিয়ার সীমান্তে নতুন ইয়াবা গডফাদার জয়নাল এখন কোটিপতি 


Los Angeles

২৩:৫৩, জুন ২০, ২০১৯

মিরসরাইয়ে সাকিব হত্যাকান্ডের ৪ বছরেও গ্রেফতার হয়নি প্রধান আসামী, হতাশ পরিবার


Los Angeles

০০:৪৭, জুন ২০, ২০১৯

দর্শনার্থীদের কাছে আহসান মন্জিল আর্কষণীয় করতে নানা পদক্ষেপ 


image
image