image

আজ, শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯ ইং

আনোয়ারায় ভেজালে সয়লাব বাজার, অভিযানেও থামছেনা অসাধু ব্যবসায়ীরা 

জাহাঙ্গীর আলম, আনোয়ারা সংবাদদাতা    |    ২৩:২১, মে ১৫, ২০১৯

image

আনোয়ারায় বাজার মণিটরিং করছেন ইউএনও শেখ জোবায়ের আহমদ

চলমান রমজান এবং ঈদকে সামনে রেখে আনোয়ারার হাট বাজার গুলোতে অসাধু ব্যসায়ীরা পণ্যে বিভিন্ন রং মেশানো সহ ভেজাল পণ্য তৈরীতে এক ধরণের   প্রতিযোগিতায় নেমেছে। সরকার নির্ধারিত পণ্যের দাম না মানা, ওজনে কম দেয়া, ফরমালিনের ব্যবহার, পাম অয়েলের মাধ্যমে ঘি তৈরী সহ কোন নিয়ম নীতিকে তোয়াক্কা না করে সব ধরণের অসধুপায় অবলম্ভনে নেমেছে ব্যবসায়ীরা। চলমান ভেজাল বিরোধী অভিযানেও থামাতে পারছেনা এসব ব্যবসায়ীদের। হাই কোর্টের নিষিদ্ধ ৫২ টি পণ্যই বাজারে বিক্রি হচ্ছে সমানতালে।

খাদ্যে ভেজাল মেশানো নতুন কোন বিষয় নয়। কিন্তু উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে দিন দিন এই ভেজালের পরিমাণ মহামারী আকার ধারণ করছে। রমজান মাসে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে সবচেয়ে বেশি সংবেদনশীলতা দেখানোর কথা থাকলেও আনোয়ারায় এর উল্টোটাই লক্ষণীয়। ফলে নিরাপদ খাদ্য পাওয়ার সাংবিধানিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন জনগণ । ভেজাল এমন এক পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, আসল চেনাই দায়। মুড়িতে হাইড্রোজ, ফলমূলে কার্বাইডসহ নানা বিষাক্ত কেমিক্যাল, মাছে ও দুধে ফরমালিন, সবজিতে রাসায়নিক কীটনাশক, জিলাপি-চানাচুরে মবিল, বিস্কুট, আইসক্রিম, কোল্ডড্রিংস, জুস, সেমাই, আচার, নুডলস এবং মিষ্টিতে টেক্সটাইল ও লেদার রং, পানিতে ক্যাডমিয়াম, লেড, ইকোলাই, লবণে সাদা বালু, চায়ে করাতকলের গুঁড়া, গুঁড়া মসলায় ভুসি, কাঠ, বালু, ইটের গুঁড়া ও বিষাক্ত গুঁড়া রং। ফলে কোন খাবারই নিরাপদ নয়। মুনাফালোভী ব্যবসায়ীরা মুড়িতে হাইড্রোজ মেশায়। হাইড্রোজ মেশানোর ফলে মুড়ি ফুলে ফেঁপে উঠে। দেখতে চকচকে এবং বড়সড় হয়। এর ফলে বেশি দামে বিক্রি করা যায়। এই সোডিয়াম হাইড্রো সালফাইড, যা হাইড্রোজ হিসেবে পরিচিত। এটি মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। খাদ্যে মেশালে সেটি যে ক্ষতির কারণ হবে এটা তো বলা বাহুল্য। বিশেষজ্ঞের মতে, হাইড্রোজ একটি শক্তিশালী ক্ষারীয় পদার্থ। খাদ্যের সঙ্গে এটি পেটে গেলে মানবদেহে রক্তের শ্বেতকণিকা, হিমোগে¬াবিনের কার্যকারিতা নষ্ট করে দেয়। ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে খাদ্যে ভেজাল দেয়া এবং ভেজাল খাদ্য বিক্রির সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ডের বিধান রাখা হয়েছে। এ ছাড়া ১৪ বছরের কারাদন্ডের বিধান রাখা হয়েছে। 

জানাযায়, রমজানের শুরু থেকে  আনোয়ারার চাতরী চৌমহনী বাজার, বটতলী রুস্তম হাট বাজার, বন্দর সেন্টার সহ প্রতিটি বাজারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমদের নেতৃত্বে বাজার মনিটরিং ও ভেজাল বিরোধী অভিযান চালিয়ে আসছে। এসময় বেশি দামে মাংস বিক্রি, মূল্য তালিকা না থাকা, পণ্যে ভেজাল দেয়া সহ নানা অভিযোগে জরিমানাও করেন ভ্রাম্যমান আদালত। মঙ্গলবার  বিকালে পাম ওয়েল দিয়ে ঘাওয়া ঘি তৈরি করার অপরাধে ‘থ্রি স্টার ঘাওয়া ঘি’ নামে  ছাবের আহমদের মালিকানাধীন অবৈধ কারখানায় অভিযান চালিয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪৩ ধারায় ৩০ হাজার টাকা জরিমানা ও ঘি তৈরির মালামাল ধ্বংস করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাইদুজ্জামান চৌধুরী। 

এব্যাপারে জানতে চাইলে আনোয়ারা উপজেলা কনজুমারস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)-র সভাপতি জাহেদুল হক বলেন,নিরাপদ খাদ্য মানুষের সাংবিধানিক অধিকার। আনোয়ারায় মানুষের নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে ক্যাব সাধারণ মানুষের পাশে থাকবে।

আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমদ বলেন, রমজানের পরেও ভেজাল বিরোধী এবং বাজার মনিটরিং  অভিযান চলমান থাকবে । হাই-কোর্টের বেধে দেওয়া সময় এক সপ্তাহ পরই নিষিদ্ধ ৫২ পণ্যের বিষয়ে অভিযান চালানো হবে। এব্যাপারে কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা।



image
image

রিলেটেড নিউজ

Los Angeles

২৩:৪১, মে ২৩, ২০১৯

সীতাকুন্ড জেলে পাড়ায় সংঘর্ষের ঘটনায় ৬৫৯জনের বিরুদ্ধে মামলা


Los Angeles

২৩:০৮, মে ২৩, ২০১৯

আনোয়ারায় ইসলামী ব্যাংকের ইফতার মাহফিল 


Los Angeles

২৩:০৬, মে ২৩, ২০১৯

আনোয়ারায় ঈদ বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ৮ হাজার টাকা জরিমানা


Los Angeles

০৪:১৩, মে ২৩, ২০১৯

কর্ণফুলীতে চোরাই মোটর সাইকেলের রমরমা ব্যবসা


Los Angeles

০৩:৩২, মে ২৩, ২০১৯

ফটিকছড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান


Los Angeles

০০:১৩, মে ২৩, ২০১৯

দোহাজারী পৌরসভার ফুটপাত দখলমুক্ত করতে অভিযান


Los Angeles

০১:১৪, মে ২২, ২০১৯

একজন সফল নারী নেত্রী রিজিয়া রেজা চৌধুরী


image
image