image

আজ, রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ ইং

টেকনাফে ৩ জনকে মূমুর্ষ গলাকাটা অবস্থায় উদ্ধার : অস্ত্রসহ আটক ১

মুহাম্মদ জুবাইর, টেকনাফ (কক্সবাজার) সংবাদদাতা    |    ২৩:৩৭, সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৮

image

টেকনাফে বাড়ছে খুন খারাবি হত্যা,আত্মহত্যা,ধর্ষন, ইয়াবা পাচার সহ নানা অপরাধ । এসব কিছু ঘটছে রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্প ভিত্তিক । সে দেশের উশৃংখল ও ঘাপটি মেরে থাকা মিয়ানমার থেকে অনুপ্রবেশ কারী রোহিঙ্গারা একাধিক সন্ত্রাসী গ্রুপ একেরপর এক অপরাধমূলক কর্মকান্ড সংঘটিত করে যাচ্ছে বলে ধারনা করছে স্থানীয় সচেতন মহল। ক্যাম্পে ঘটছে একের পর লৌমহর্ষক ন্যাক্কারজনক ঘটনা। সাধারণ রোহিঙ্গাদের অভিযোগ, ক্যাম্পগুলোতে এসব সন্ত্রাসী আধিপত্য বিস্তার, ইয়াবা পাচার,চিন্তাই,রাহাজানী, হত্যা,ধর্ষনের চেষ্টা চালাচ্ছে, এর ফলেই ঘটছে অপহরণসহ হত্যাকান্ডের মতো নানা ঘটনা। সন্ত্রাসী চক্রের চাঁদাবাজি, খুন, অপহরণসহ নানা প্রকার ভীতিকর কার্যকলাপে ক্যাম্পের সাধারণ রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়দের মধ্যে ও  দেখা দিয়েছে অজানা আতঙ্ক, উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা। গত কয়েকদিনে উদ্ধার করেছে লাশ ও গলাকাটা আহতাবস্থায় মূমুর্ষ কয়েক রোহিঙ্গা যুবককে। অপহরন করে হত্যা চেষ্টা থেকে ৩জনকে গলাকাটা অবস্থায় সহ ৬জনকে উদ্ধার করেছে।

জানা যায় ৩ সেপ্টেম্বর (সোমবার ) সকালে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের চাকমারকুল এলাকায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড় থেকে ৩জনকে গলাকাটা অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ।
তারা হলেন- উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্পের ছৈয়দ হোসেনের ছেলে নূর আলম (৪৫), কুতুপালং ক্যাম্পের ডি-ব্লকের আবদুল খালেক (২৫) এবং ই-ব্লকের মোহাম্মদ আনোয়ার (৩৩)।

একই দিন দুপুরে উখিয়ার কুতুপালং এলাকা থেকে বাকী তিনজনকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় বলে জানাযায়। তারা হলেন- বালুখালী ক্যাম্পের নুরুল আমিন, জামাল হোসেন ও মো. সোলাইমান। তাদেরকে উখিয়া থানায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নেয়া হয়েছে বলে সুত্রে জানা যায়  

টেকনাফের হোয়াইক্যং পুলিশ চৌকির কর্মকর্তা (এসআই) দীপংকর কর্মকার জানান, ছয় রোহিঙ্গা অপহৃত হওয়ার পর তাদের মধ্যে তিনজনকে হত্যাচেষ্টার সময় উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি জানান, পুলিশের একটি দল স্থানীয়দের সহযোগিতায় সকাল ৯টার দিকে পাহাড়ের ভেতর থেকে তিন রোহিঙ্গা যুবককে গলাকাটা অবস্থায় উদ্ধার করে। তাদের পরনে ছিল গেঞ্জি ও লুঙ্গি। তাদের কে বা কারা হত্যার চেষ্টা করছিল, সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

টেকনাফ থানার ওসি রনজিত কুমার বড়ুয়া বলেন, রোববার রাতে উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্প থেকে ছয় রোহিঙ্গা অপহৃত হন। সকালে চাকমারকূল রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় অপহৃতদের রাখা হয়েছে বলে খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। পুলিশ তিনজনকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করার সময় উদ্ধার করে। অপহরণকারীরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা যায়নি।

উদ্ধার হওয়া তিনজনের মধ্যে একজনকে টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পের একটি ক্লিনিকে আর দুইজনকে উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্প সংলগ্ন রেড ক্রিসেন্ট ফিল্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে এ হত্যাচেষ্টার পেছনে কারা জড়িত সেসব বিষয়ে  পুলিশ কিছু বলতে পারেনি। সুস্থ অবস্থায় উদ্ধার তিনজনকে সংশ্লিষ্ট ক্যাম্প ইনচার্জের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে একটি সুত্রে জানা যায়।

এদিকে টেকনাফ মডেল থানা পুলিশ নয়াপাড়া শরনার্থী ক্যাম্প এলাকায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্র গুলি সহ এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করেছে।

৩ সেপ্টেম্বর সোমবার ভোর সাড়ে ৩ টায় গোপন সংবাদের  ভিত্তিতে টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ রনজিত কুমার বড়ুয়ার নির্দেশে এস আই নাজিম উদ্দীন সঙ্গীয় ফোর্স সহ নয়াপাড়া শরনার্থী ক্যাম্পের প্রবেশ মুখ থেকে নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পের বি ব্লকের, ১০৪১ নং শেডের সিরাজুল ইসলামের ছেলে (এমআরসি ৪৪৬৫৯) জিয়াউর রহমান (২২) নামে এক রোহিঙ্গা যুবককে অপরাধ সংগঠনের উদ্দেশ্যে ঘোরাফেরা করা কালে ১ টি সচল এল জি ও ২ রাউন্ড কার্তুজ সহ আটক করা হয়। তাকে ৫দিনের রিমান্ড এর প্রতিবেদন সহ আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।



image
image

রিলেটেড নিউজ

Los Angeles

০০:০০, নভেম্বর ৭, ২০১৮

মালয়েশিয়াগামী ১৪ রোহিঙ্গা নারী পুরুষ টেকনাফে আটক


Los Angeles

১৮:৩০, অক্টোবর ৩০, ২০১৮

উখিয়ায় নির্বিচারে অতিথি পাখি শিকার


Los Angeles

১৫:০১, অক্টোবর ৩০, ২০১৮

আসছে প্রাথমিক শিক্ষা বোর্ড


Los Angeles

১৬:৩৮, অক্টোবর ২৭, ২০১৮

বাংলাদেশ মিয়ানমার মৈত্রী সড়ক এখন দৃশ্যমান


Los Angeles

২৩:১১, অক্টোবর ২২, ২০১৮

রোহিঙ্গারা অধিকার, সম্মান ও নিরাপত্তার সঙ্গে নিজ দেশে ফিরবে : এলিস ওয়েলস


Los Angeles

১৪:২৫, অক্টোবর ১৬, ২০১৮

একাদশেও বিএনপি না থাকার সম্ভাবনা বেশী : ২৭ ডিসেম্বরেই নির্বাচন


image
image