image

আজ, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ ইং

চট্টগ্রামে বিআরটিএ ম্যাজিস্ট্রেটের অভিনব উদ্যোগঃ বাড়তি ভাড়া ফেরত পেলো যাত্রীরা

প্রতিবেদক    |    ০২:৩৫, মে ৩১, ২০১৯

image

অভিনব এক উদ্যোগ নিয়েছিলেন বিআরটিএ'র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস, এম, মনজুরুল হক।  ক'দিন আগে তিনি বিআরটিএ'র বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেটবৃন্দের নিজস্ব ফেসবুক পেজের মাধ্যমে ঈদে দূরপাল্লার যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া বিষয়ক তথ্য আহবান করেছেন।  অর্থাৎ ঈদ উপলক্ষ্যে কোন পরিবহন যাত্রীর কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করে থাকলে সেই বাসের নাম, গন্তব্য, আদায়কৃত অতিরিক্ত ভাড়ার পরিমাণ, যাত্রীর মোবাইল নম্বর ইত্যাদি তথ্য প্রদানের আহবান জানান। ম্যাজিস্ট্রেটবৃন্দ যাত্রীদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন,  তাঁরা বাড়তি ভাড়া নেওয়া পরিবহনগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন এবং সম্ভব হলে যাত্রীদের কাছ থেকে নেওয়া অতিরিক্ত ভাড়া সংশ্লিষ্ট পরিবহনগুলোর কাছ থেকে আদায় করে যাত্রীদের ফিরিয়ে দেবেন।  ম্যাজিস্ট্রেটদের এ আহবানে সাড়া দিয়ে অনেক যাত্রী বর্ণিত ফেসবুক পেজে তাদের তথ্য প্রদান করেন। তাতে দেখা যায় কম পরিচিত পরিবহনগুলোর পাশাপাশি অনেক স্বনামধন্য পরিবহনও ঈদ উপলক্ষ্যে দূরপাল্লার যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে। এসি এবং নন-এসি দু’ধরনের বাসেই অতিরিক্ত ভাড়া নেয়া হচ্ছে। 

যাত্রীদের অভিযোগের ভিত্তিতে আজ ম্যাজিস্ট্রেট এস, এম, মনজুরুল হক বাস কাউন্টারসমূহে অভিযান পরিচালনা করেন। যাত্রীদের অভিযোগ দেয়া পরিবহনগুলোর মধ্যে সৌদিয়া, শ্যামলী, ইউনিক, দেশ ট্রাভেলস, বিশাল পরিবহন, জি এস ট্রাভেলস, রয়েল পরিবহন, দিদার পরিবহনসহ অন্যান্য পরিবহনও রয়েছে। পরবর্তীতে অতিরিক্ত ভাড়ার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ইউনিক পরবহনকে ২০ হাজার, সৌদিয়া পরিবহনের দুই কাউন্টারকে যথাক্রমে ৩০ হাজার ও ২০ হাজার, দেশ ট্রাভেলসকে ২৫ হাজার এবং বিশাল পরিবহনকে ৬ হাজারসহ মোট ১ লক্ষ ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। 

এ অভিযানের সবচেয়ে চমকপ্রদ বিষয় হলো দামপড়াস্থ অভিযুক্ত সৌদিয়া ও ইউনিক পরিবহন যাত্রীদের কাছ থেকে তাদের নেওয়া বাড়তি ভাড়া ফেরত দিয়েছেন। 

ম্যাজিস্ট্রেটের এ অভিনব উদ্যোগকে যাত্রীরা স্বাগত জানান এবং তাদের ঈদের খুশি অনেকগুণ বেড়ে যায়। 

তারা বলেন, এরকম তারা আজ পর্যন্ত কখনো দেখেন নাই। প্রশাসনের কোন কর্তা আজ পর্যন্ত কখনো যাত্রীদের কাছ থেকে নেওয়া অতিরিক্ত ভাড়া তাদের কাছ থেকে অভিযোগ নিয়ে তাদেরকে ফিরিয়ে দিয়েছেন বলে তারা শোনেননি। 

ম্যাজিস্ট্রেট এস, এম, মনজুরুল হক বলেন , এ কাজটি করতে পেরে তিনি খুব আনন্দ অনুভব করছেন। তিনি তার অভিযান চালিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।



image
image

রিলেটেড নিউজ

Los Angeles

০১:৩৯, জুন ১৯, ২০১৯

চট্টগ্রামে কর আইনজীবি সমিতির মানববন্ধন


Los Angeles

১৩:৩৫, জুন ২, ২০১৯

চট্টগ্রামে ঈদ বস্ত্র বিতরণ করেছে ব্যাচ ০২-০৪


image
image
image

আরও পড়ুন

Los Angeles

০০:৪৭, জুন ২০, ২০১৯

দর্শনার্থীদের কাছে আহসান মন্জিল আর্কষণীয় করতে নানা পদক্ষেপ 


Los Angeles

০০:২৫, জুন ২০, ২০১৯

ফটিকছড়িতে জিয়াউল হক মাইজভান্ডারী ট্রাস্টের দাতব্য চিকিৎসালয় উদ্ভোধন