image

আজ, সোমবার, ২৫ মে ২০২০ ইং

মেয়র প্রার্থী আলোচনায় শাহাদাত-সুফিয়ান-বক্কর

ডেস্ক    |    ১৬:২০, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

image

সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেওয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। কেন্দ্রের এমন সিদ্ধান্তের পর প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর ও সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান।

এ তিনজনই মনোনয়ন পেতে ইতোমধ্যে তদবির শুরু করেছেন। নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়সহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছে গিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময়ও করছেন। দল মনোনয়ন দিলে আটঘাট বেঁধে নেমে পড়ার কথাও জানালেন তারা।

গত সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী ছিলেন সাবেক মেয়র এম মনজুর আলম। তিনি আওয়ামী লীগ থেকে বিএনপিতে যোগ দিয়ে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টাও হন। কিন্তু ওই সময়ে সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে তিনি কেন্দ্র থেকে ভোট বর্জনের নির্দেশ দেন। এ নিয়ে বিশেষ কারণে ক্ষুব্ধও ছিলেন তিনি। পরে বিএনপির পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

এ অবস্থায় বিএনপি থেকে নতুন প্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। সে ক্ষেত্রে নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর ও সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান আলোচনায় রয়েছেন। এছাড়া কারাগারে থাকা বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরীর নামও আলোচনায় আছে। তবে মেয়র নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া নিয়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে।

সূত্র জানায়, গত জাতীয় নির্বাচনে কোতোয়ালী আসনে প্রার্থী ছিলেন ডা. শাহাদাত হোসেন। কিন্তু এ আসনে নির্বাচন করার কথা ছিলো সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্করের। ওই সময়ে ডা. শাহাদাত তাকে বলেছিলেন- মেয়র পদে নির্বাচনে তাকে সুযোগ দেবেন। ডা. শাহাদাতের এমন আশ্বাসে আবুল হাশেম বক্কর ওই সময় কোতোয়ালী আসনে প্রার্থী হননি।

কিন্তু এখন ডা. শাহাদাত মেয়র পদে প্রার্থী হতে চাওয়ায় তাদের মধ্যে বিরোধ শুরু হয়। তবে দুজনই এখন বলছেন, দলের সিদ্ধান্তের ওপর তাদের আস্থা রয়েছে।

ডা. শাহাদাত হোসেন  বলেন, দলের সিদ্ধান্তই মুখ্য। আমি দলের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। এখানে ৪১টি ওয়ার্ড রয়েছে। সব ওয়ার্ডেই আমার যাতায়াত আছে।

আবুল হাশেম বক্কর  বলেন, ৩০ ডিসেম্বর আগের রাতে ডাকাতি করে জনগণের ভোটাধিকার হরণ করা হয়েছিল। তারই ধারাবাহিকতায় সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে কিনা তা নিয়ে জনগণের মনে সন্দেহ রয়েছে। তবুও দল যদি নির্বাচনে যায়, আমি প্রার্থী হতে চাই।

আবু সুফিয়ান  বলেন, আমি আমার আসন বোয়ালখালীতে প্রতিদিনই কাজ করে যাচ্ছি। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীদের নিয়ে আন্দোলন করছি। দল যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় তাহলে পুরোদমে মাঠে নামবো।



image
image

রিলেটেড নিউজ

Los Angeles

০১:০৭, মে ২৪, ২০২০

চট্টগ্রামে র‌্যাব-পুলিশসহ ১৬৬ জনের করোনা শনাক্ত


Los Angeles

২৩:২৬, মে ২৩, ২০২০

অতিচালকরা শেষমেষ ব্রিজে গিয়েই ধরা খেলেন !


Los Angeles

০০:১৯, মে ২২, ২০২০

ফজলে করিম মুক্ত, নিরাপত্তাকর্মী আক্রান্ত


image
image
image

আরও পড়ুন

Los Angeles

২২:১৭, মে ২৪, ২০২০

আনোয়ারায় জায়গা জমির বিরোধে যুবক খুন