image

নুসরাত ও ফারিয়াকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে

image

সোমবার রাতে ডেমরা থানা এলাকার শাহজালাল রোডের নাসিমা ভিলার নীচ তলার একটি কক্ষের খাটের নীচ হতে উদ্ধার হওয়া শিশু নুসরাত জাহান ও ফারিয়া আক্তার দৌলার ময়নাতদন্ত মঙ্গলবার স্যার সলিমুল্লাহ মিটফোর্ড মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগে সম্পন্ন হয়।

প্রভাষক নওশাদ মাহমুদ দুই শিশুর ময়নাতদন্ত করেন।নিহত শিশুদের গলা ও শরীরের বিভিন্ন স্হানে আঘাতের চিহ্ন পেয়েছে।শিশু দুটিকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার প্রাথমিক প্রমান পেয়েছেন চিকিৎসক। তাদের ধর্ষণ করা হয়েছে কিনা বিষয়টি নিশ্চত হতে কেমিক্যাল (হিষ্ট) টেষ্ট পাঠানো হয়েছে এবং তাদের গলায় কালো দাগ থাকায় প্যাথলজিক্যাল টেষ্ট দেয়া হয়েছে।শিশুদের স্কিন কোমল হওয়ায়   দাগ ছাড়া দৃশ্যমান কিছু নেই, তাই মৃত্যুর  প্রকৃত কারন ও শারীরিক নির্যাতনের বিষয়টি পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া যাবে টেষ্ট রিপোর্টগুলো হাতে পাওয়ার পরই বলে ফরেনসিক বিভাগের চিকিৎসক ডাঃনওশাদ মাহমুদ জানিয়েছেন।

সোমবার রাতে কোনাপাড়ার শাহজালাল রোডের আবুল হোসেনের৭ তলা বাড়ির নীচতলার  ভাড়াটিয়া গোলাম মোস্তফার ঘরের খাটের নীচ থেকে নুসরাত ও দৌলার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ সময় কক্ষটি বাহির থেকে তালাবদ্ব ছিলো।সোমবার  দুপুরের পর থেকেই দুই শিশু নিখোঁজ ছিলো।পুলিশ মোস্তফার স্ত্রী আখি খানম ও তার ছেলে জিহাদ কে আটক করলেও সন্দেহভাজন ঘাতক গোলাম মোস্তফা কে আটক করতে পারেনি।মোস্তফা মাদকাসক্ত বলে স্হানীয়রা জানিয়েছে।