image

গরুর তাড়া খাওয়ার পর’ নির্মাণাধীন ফটকের চাপায় স্কুলছাত্র নিহত

image

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের নির্মাণাধীন ফটকের চাপায় মাহিন মিয়া (৮) নামের তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় পৌর শহরের আদমপুর এলাকায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মাহিন উপজেলার মাসকা ইউনিয়নের রায়পুর (পূর্বপাড়া) গ্রামের গাজীবুর রহমানের ছেলে এবং পৌর শহরের আদমপুর খান অ্যান্ড পণ্ডিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র।

পুলিশ ও মাহিনের পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে জানা গেছে,  বিকেলে স্কুলছাত্র মাহিন মিয়া গ্রামের অন্য শিশুদের সঙ্গে স্থানীয় হেলিপ্যাড মাঠে পশুর হাট দেখতে যায়। পরে মাহিন বাড়ি ফেরার পথে তাকে গরু তাড়া করে। এ সময় সে আশ্রয় নিতে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের নির্মাণাধীন লোহার ফটকের কাছে গেলে ধাক্কা লেগে ফটকটি মাহিনের ওপর পড়ে যায়। এতে মাহিনের মাথায় আঘাত লেগে ফেটে যায়। ঘটনাটি জানতে পেরে ফায়ার সার্ভিস অফিসের লোকজন মাহিনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আলী মোহাম্মদ হোসাইন তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে কেন্দুয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) স্বপন চন্দ্র সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ইনচার্জ মাহমুদ আলম বলেন, ‘দুই দিন আগে গণপূর্ত বিভাগের অধীনে আমাদের স্টেশনের মূল এ ফটকটি সম্পূর্ণ নির্মাণ শেষ করে দেওয়ার কথা ছিল নেত্রকোনার ঠিকাদার আবু তাহেরের। কিন্তু ঠিকাদার তা করেনি। ঠিকাদারের গাফিলতির কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।’

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমারত হোসেন গাজী এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ না থাকায় লাশটি তাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।