image

শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে ইউএসটিসি শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

image

মঙ্গলবার (২ জুলাই) দুপুরে ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির (ইউএসটিসি)খুলশী ক্যাম্পাসে ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক মাসুদ মাহমুদের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ এনে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন কিছু শিক্ষার্থী।

বিক্ষোভকালে অভিযুক্ত শিক্ষককে অফিস থেকে বের করে গায়ে কেরোসিন ঢেলে দেয়ার চেস্টা করে তারা। এ ঘটনায় সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার দিলীপ কুমার বড়ুয়া বলেন, কিছু শিক্ষার্থী হঠাৎ অধ্যাপক মাসুদ মাহমুদকে প্রকাশ্যে অফিস থেকে টেনে বের করে নিয়ে যায় তারপর তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে দিয়েছে। এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য চরম অপমানজনক ঘটনা।তদন্ত সাপেক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ ঘটনায় ব্যবস্থা নেবে।

খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রনব চৌধুরী বলেন, শিক্ষককে লাঞ্ছনার অভিযোগ পেয়ে খুব দ্রুত  পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। কোন অপ্রীতিকর কিছু না ঘটার জন্য কঠোর অবস্থান নেয় পুলিশ। ইউএসটিসির উপাচার্যসহ ছাত্র -শিক্ষক সবাই বৈঠকে বসেছেন। এর কিছুক্ষণ আগে শিক্ষার্থীদের একটি দল শিক্ষককে লাঞ্ছনার পর ফয়’স লেকের সামনে গিয়ে মহা সড়কে অবস্থান নেন। সেখানে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন তারা। এ সময় যানবাহন আটকা পড়ে দুই পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।তাৎক্ষনিক পুলিশ এসে রাস্তা থেকে শিক্ষার্থীদের সরিয়ে দিয়েছে।

উল্লেখ্য, ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি চট্টগ্রামের (ইউএসটিসি) ইংরেজি বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা বেশ কিছুদিন ধরে শ্রেণিকক্ষে ওই শিক্ষকের কাছ থেকে ক্রমাগত যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়ার অভিযোগ করে আসছিলেন।

 গত ২৯ এপ্রিল ইউএসটিসির রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অধ্যাপক মাসুদ মাহমুদের বিরুদ্ধে আনা যৌন নিপীড়নের অভিযোগ সত্য নয় বলে তাকে সসম্মানে বহাল রাখা হয়।