image

আজ, শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ইং

মানবতা শান্তি ও সমৃদ্ধির অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত বাংলাদেশ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক    |    ২০:১০, অক্টোবর ১৬, ২০২০

image

মানবতা শান্তি ও সমৃদ্ধির অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত বাংলাদেশ।নিজেদের সীমাবদ্ধতার মধ্যেও দেশ থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে যে অনন্য নজির স্থাপন করেছে তা সমসাময়িক রাজনীতিতে একটি অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন ।

শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, চট্টগ্রাম কেন্দ্রে আয়োজিত “অদম্য বাংলাদেশ” গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে অনলাইনে সংযুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন এসব কথা বলেন।

নেটওয়ার্ক ফর ইন্টারন্যাশনাল ল্ স্টুডেন্টস বাংলাদেশ চ্যাপ্টার এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে দুইটি সম্পদ রয়েছে। সেগুলো হচ্ছে- মানবসম্পদ ও পানি সম্পদ। কিন্তু আমরা দক্ষতার অভাবে এই দুই ধরনের সম্পদকে কাজে লাগাতে পারছি না। যদি এই দুই  ধরনের সম্পদকে কাজে লাগানো যায় তাহলে বাংলাদেশ স্বয়ংসম্পূর্ণ হবে।
তিনি বলেন, বর্তমানে আলুর দাম বেড়ে গেছে। শুধু কার্যকর প্রক্রিয়াজাতের অভাবে দেশে লাখ লাখ টন আলু উদ্বৃত্ত হয়ে পড়ে আছে। এজন্য কৃষিতে আধুনিকায়ন দরকার।

সিলেট-চট্টগ্রাম-কক্সবাজার বিমান যোগাযোগ চালুর প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম থেকে সিলেটে বিমান চলাচল শুরু হয়েছে। এখন সিলেট থেকে চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার পর্যন্ত বিমান যোগাযোগ চালুর প্রক্রিয়া চলছে।

“অদম্য বাংলাদেশ” গ্রন্থের লেখক ও বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. সাজ্জাদ হোসেনের অনুষ্ঠানে অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, বঙ্গবন্ধু বিশ্বের সম্পদ। কিন্তু দুর্ভাগ্য, আমরা তাকে ধারণ করতে পারিনি। তবে আমরা শেখ হাসিনাকে পেয়েছি। বাঙালি পরিশ্রমী, মেধাবী। কিন্তু সেই মেধাকে কাজে লাগাতে হবে। যুগোপযোগী গবেষণার মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুষদের ডিন এবিএম আবু নোমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত আয়োজনে বিশেষ আলোচক ছিলেন চবি উপাচার্য ড. শিরীণ আখতার।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিজিসি ট্রাস্ট বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. সরোজ কান্তি সিংহ হাজারী, বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এএফ ইমাম আলী, চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মাহাবুবুল আলম, বাংলাদেশ চা বোর্ডের যুগ্মসচিব ড. নাজনীন কাউসার, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড চট্টগ্রামের চেয়ারম্যান অধ্যাপক প্রদীপ চক্রবর্তী, ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন চট্টগ্রামে কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী শহীদুল আলম প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয় কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন। 



image
image

রিলেটেড নিউজ

Los Angeles

১২:৪১, মে ১৩, ২০২২

এক হাজার অটোরিক্সা ডাম্পিং করলো চট্টগ্রাম বিআরটিএ


image
image